ক্লাস অফ ক্লান কি? ক্লাস অফ ক্লান খেলার নিয়ম,রহস্য, আবিষ্কারক ও টিপস । clash of clans হ্যাক

clash of clans বর্তমান সময়ে বেশ জনপ্রিয় একটা অনলাইন গেম। আমাদের সময়ের বেশ কয়েকটা গেমের ভিতর এই গেমটা অন্যতম। 

তো বেশি কথা না বলে আমরা চলুন আমরা পোস্টের ভিতর চলে যাই।  

clash of clans কি? 

clash of clansহল একটা অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার গেম যা আপনি অনলাইনে আপনি অন্যান্য গেমের ইউজারের সাথে গেম খেলতে পারবেন। এই গেমটি আমাদের সময়কার জনপ্রিয় গেমস। clash of clans তৈরি করেছে তারা হল সুপারসেল। সুপারসেলের তৈরি ৫টি গেমের ভিতর clash of clansঅন্যতম।  

আপনি যদি clash of clans অর্থ কি  জানতে চান তাহলে শুনুন। ইংরেজিতে clash মানে হল যুদ্ধ। আর clans মানে হল গোত্র, গোষ্টী, বা দল। এর অর্থ দাঁড়ায় clash of clans অর্থ হল দলের ভিতর সংঘর্ষ বা দলের ভিতর যুদ্ধ।

clash of clans আপনি গেম খেললে আপনি একটা বেস পাবেন যেখানে আপনি নিজের একটি গ্রাম তৈরি করতে পারবেন।সেখানে আপনার আর্মি, আপনার বিভিন্ন জিনিসপত্র পাবেন। আবার নিজের বেস বা গ্রামকে রক্ষা করার জন্য আপনি বিভিন্ন ডিফেন্সের জিনিস যেমন ক্যানন, মর্টার , আর্চার টাওয়ার পাবেন। এগুলো কোন শত্রুর হাত থেকে  আপনাকে রক্ষা করবে। 

ক্লাস অফ ক্লানে সাধারণত তিনটি কারেন্সি সিস্টেম আছে। তা হল এলিক্সার, গোল্ড কয়েন আর ডার্ক এলিক্সার। 

সাধারণত এলিক্সার ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন সৈন্য কিনতে। আর গোল্ড কয়েন ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন ডিফেন্স কিনতে। আর ডার্ক এলিক্সার খরচ হয় বিভিন্ন ডার্ক ট্রপস কিনতে।  তবে আপনি চাইলে জেমস খরচ করে আপনি সব কিনতে পারবেন। কিন্তু জেমস খরচ করতে হলে আপনার জেমস কিনতে হবে যা আপনাকে রিয়েল টাকা দিয়ে কিনতে হবে। 

ক্লাস অফ ক্লানে আপনি এলিক্সার খরচ করে আপনার ট্রপসদের ট্রেইনিং দিতে পারবেন। এর পর তাদের নিয়ে আপনি কোনো যুদ্ধে যেতে পারবেন। আপনি যুদ্ধে গিয়ে ট্রফি, এলিক্সার, গোল্ড কয়েন আর ডার্ক এলিক্সার পাবেন। 

বর্তমানে ক্লাস অফ ক্লানে ১৩ টি টাউন হল আছে। একেকটা টাউনহল মানে এক একটি লেভেল। আপনার টাউন হল যত বাড়বে আপনি তত লেভেল আপ হবেন। clash of clansএ আপনার বেজের সকল নির্মাণ কাজ করবে বিল্ডাররা। তারা আপনাকে সকল কিছু আপডেট, নির্মাণ করে দিবে। বিল্ডার নামাতে আপনার জেমস খরচ করতে হয়। 

 ক্লাস অফ ক্লানে গোল্ড কয়েন, এলিক্সার আর ডার্ক এলিক্সার পাওয়ার জন্য যথাক্রমে গোল্ড মাইন, এলিক্সার কালেক্টর আর ডার্ক এলিক্সার কালেক্ট পাবেন। এগুলো আপনাকে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণে এলিক্সার এনে দিবে আপনাকে। আপনি এগুলো যতই আপডেট দিবেন এগুলোর মাইনিং পরিমান ততই বাড়বে। 

ক্লাস অফ ক্লানে আপনি যদি  কোনো ক্লান এর সাথে জয়েন থাকেন তাহলে আপনি ক্লান ওয়ার করতে পারেন। ক্লান ওয়ার হল একটা ক্লানের সাথে অন্য একটি ক্লানের যুদ্ধ। আপনি সেখানে জয়েন হয়ে বিপুল পরিমানে লুট করতে পারবেন। ক্লান ওয়ারের ফলে ক্লানের ট্রফি বৃদ্ধি পায়। 

ক্লাস অফ ক্লানে আপনি কোনো ক্লান এ জয়েন থাকলে আপনি আপনার ট্রপস ডোনেট করতে পারবেন, আবার আপনি ডোনেশন চাইতেও পারবেন। আপনার পাওয়া ডোনেশনগুলো আপনার ক্লান ক্যাসেলে জমা হয়। আর আপনার বেসে যখন কেউ এটাক করে তখন এগুলো ডিফেন্স হিসেবে কাজ করে। 

clash of clans এর আবিষ্কারক / clash of clan এর ইতিহাস 

clash of clans এর মুলত একজন আবিষ্কারক নাই। একটা কোম্পানি মিলে এই গেম তৈরি করেছে। সেই কোম্পানির নাম হল সুপারসেল। সুপারসেল কোম্পানি ফিনল্যান্ডের। তাদের আরো ৪ টি গেম আছে। clash of clansআবিষ্কার করেন ২০১২ সালে । 

ক্লাস অফ ক্লান রহস্যঃ

clash of clans অনেক বড় একটি গেম। আর তার বেশ কিছু রহস্য থাকারই কথা। আমি এখন আপনাদের ক্লাস অফ ক্লান্সের বেশ কয়েকটি রহস্যের কথা বলবঃ 

ক্লাস অফ ক্লান রহস্য ১–

বর্তমানে ক্লাস অফ ক্লানের থেকে সুপার সেলের দৈনিক আয় প্রায় ১ মিলিয়ন ডলার, বাংলা টাকায় প্রায় ৮০ কোটি টাকা। গেমটির বর্তমান অবস্থান প্লে স্টোরে ৯৬ তম। কিন্তু গেমটি প্লে স্টোরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আয় করা গেম। এখানে রহস্য হল একজন গেমার তার নিজের সময়, নিজের টাকা ব্যয় করে গেম খেলে। এতে সে সাময়িক আনন্দ পায়। কিন্তু সে নিজের সময় , নিজের টাকা ব্যয় করে কেন অন্যকে এত মুনাফা দিবে তার রহস্য আজ পর্যন্ত কেউ জানে না। আপনি যদি জানেন তাহলে নিচে কমেন্ট করতে পারেন। 

ক্লাস অফ ক্লান রহস্য -২ঃ ক্লাস অফ ক্লান ইসলাম

কিছু দিন আগে ক্লাস অফ ক্লানের বিরুদ্ধে একটা অভিযোগ হয়েছিলো যে ক্লাস অফ ক্লানের টাউনহল ৯ নাকি দেখতে কাবা শরিফের মত। এর দ্বারা নাকি ইহুদী খ্রিস্টানরা মুসলমানদের ছোট করছে। কিন্তু আমার কথা হল টাউনহল ৯ কে কোন দিক থেকে কাবা শরীফের মত লাগে? যারা বলছে তারা সম্ভবত কানা, চোখে দেখে না। 

কাবা শরীফ চার কোনা আকৃতির, কিন্তু টাউনহল ৯ তো চারকোনা না। এ বিষয়ে সুপারসেল নিজেই বলেছেন যে, এ গেমের সাথে কোনো ধর্মের টানা টানি নাই। তারা কোনো ধর্মকে এই গেমের ভিতরে ঢুকায় নাই। 

যারা এসব গুজব তুলেছিল তারা ইউটিউবে বেশি ভিউ পাবার আশায় এই গুজব তুলেছিল। আর একটা জনপ্রিয় গেমস নিয়ে এইরকম গুজব ছড়ানো স্বাভাবিক। 

ক্লাস অফ ক্লান হ্যাক – কিভাবে ক্লাস অফ ক্লান হ্যাক করব

আসলে clash of clansহ্যাক করে খেলা যায় কিনা তা আমি জানি না। আর আমি মনে করি একটা গেম খেলতে তার মড ভার্শন খেলা ভাল না। এতে আপনার একাউন্ট যে কোনো সময় ব্যান হতে পারে। আবার মড ভার্সন করলে আপনি গেমের প্রকৃত মজাও পাবেন না। 

আর যদি আপনি জানেন যে ক্লাস অফ ক্লান হ্যাক  করা যায় বা হ্যাক করে আনলিমিটেড জেমস পাওয়া যায় তাহলে প্লিজ কমেন্ট করুন। 

clash of clans টিপস

আসলে clash of clansনিয়ে আমার বেশি কিছু টিপস দেয়ার নাই। মূলত এই গেম আপনার টেকনিকের উপর নির্ভর করে। আপনি যত টেকনিক খাটাতে পারবেন তত বেশি সফল হবেন। এর পরেও আমি কিছু clash of clans টিপস  দিয়ে দিচ্ছিঃ 

    1. clash of clansখেলার প্রথমেই আপনাকে মনে রাখতে হবে যে আপনার গ্রামের সুরক্ষা আগে। তাই আপনার টাউনহল আপডেট দেওয়ার পরেই আপনি ডিফেন্সগুলো ম্যাক্স করে ফেলবেন।  এতে করে কেউ আপনার গ্রামে এটাক দিবে না। 
    2. আপনি যতটুকু পারেন আপনার ক্লান ক্যাসেলে বেশ কিছু সৈন্য রাখবেন । এতে করে যখন কেউ এটাক করবে আপনার ক্লান ক্যাসেলের সৈন্য গুলো ডিফেন্স হিসেবে কাজ করবে। 
    3.  আপনি যখন কোনো টাউনহল আপডেট দেন তখন চেষ্টা করবেন যে ঐ  টাউন হল ম্যাক্স করে এর পর নতুন টাউনহলে যাওয়ার। নইলে পরে আপনার সমস্যা হবে। 
    4. আপনি প্রথমে আপনার এলিক্সার কালেক্টর আর গোল্ড মাইন গুলোকে আপডেট দিবেন। কারণ সেগুলো ছাড়া আপনি অচল। সেগুলোর থেকে প্রাপ্ত এলিক্সার আর গোল্ড কয়েনই আপনার সম্বল। 
    5. আপনি যতদূর পারেন ক্লান ওয়ারের যোগ দেবেন। এতে করে আপনার লুট বেশি পাবেন। 
    6. আপনি  কোনো জেমস খরচ করবেন না। কারণ জেমসের দরকার  ছোট টাউন হলে থাকতে বুঝবেন না। কিন্তু যখন আপনি বড় টাউনহলে যাবেন তখন বুঝবেন। তখন ২ টা বিল্ডার নিয়ে কাজ করা অনেক কষ্টের। কারণ বড় টাউনহলের প্রায় সব কাজই ১ দিনের বেশী সময়ের।
    7.  clash of clans এ আপনি চাইলে গবলিন এর জায়গায় এটাক দিতে পারেন। এতে আপনার শিল্ডের কোনো প্রব্লেম হবে না। 
    8. clash of clans এ আমি আপনাকে রিয়েল টাকা দিয়ে জেমস কিনোট নিরুৎসাহিত করবো। 
  1. clash of clans গেমের বিল্ডার বেসও বেশ কাজের ।আপনি ঐ দিকেও মনোযোগ দিবেন। 

clash of clans কিভাবে খেলতে হয়

 আসলে ক্লাস অফ ক্লান খেলার কোনো নিয়ম নাই। আপনি আপনার ইচ্ছা মত যে কোনো ভাবে খেলতে পারেন। তবে আমার দেয়া উপরের নিয়ম বা টিপস গুলো মানলে আপনি অবশ্যই  ভাল খেলতে পারবেন।

কোনো প্রশ্ন থাকলে করতে পারেন কমেন্ট বক্সে। ধন্যবাদ

ট্যাগসঃ

clash of clans খেলার নিয়ম, clash of clans এর রহস্য, clash of clans এর আবিষ্কারক, clash of clans টিপস, clash of clans হ্যাক, clash of clans কি, সিওসি গেম

clash of clans কিভাবে খেলতে হয়
clash of clans টিপস
ক্লাস অফ ক্লান হ্যাক
কিভাবে ক্লাস অফ ক্লান হ্যাক করব
ক্লাস অফ ক্লান ইসলাম
ক্লাস অফ ক্লান রহস্য
cash of clans এর আবিষ্কারক
clash of clan এর ইতিহাস
clash of clans কি?
clash of clans অর্থ কি

2 thoughts on “ক্লাস অফ ক্লান কি? ক্লাস অফ ক্লান খেলার নিয়ম,রহস্য, আবিষ্কারক ও টিপস । clash of clans হ্যাক”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *